ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে কর্মরত আর্মি মেডিকেল কোরের একজন কর্মকর্তা কভিড-১৯ পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন।

কভিড-১৯: বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে সংক্রমণের প্রথম ঘটনা নেত্র নিউজ April 7, 2020

সামরিক বাহিনীর দুই জন পদস্থ কর্মকর্তা এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেজর পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তা কভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। সামরিক বাহিনীর দুই জন পদস্থ কর্মকর্তা পৃথকভাবে নেত্র নিউজকে এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। বাংলাদেশে এটিই একজন সামরিক কর্মকর্তার কভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রথম ঘটনা।

সামরিক বাহিনীর একজন পদস্থ কর্মকর্তা নেত্র নিউজকে এক বার্তায় জানান, “করোনা পজিটিভ — নিশ্চিত। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে প্রথম আক্রান্তের ঘটনা।” কভিড-১৯ আক্রান্ত ওই কর্মকর্তার নামসহ অন্যান্য পরিচয়মূলক তথ্যও তারা আমাদের জানিয়েছেন। তবে ব্যক্তিগত গোপনীয়তা সংক্রান্ত সংবেদনশীলতার কারণে আমরা ওই তথ্য প্রকাশ করছি না। তবে আমরা এতটুকু বলতে পারি যে, সংক্রমিত ওই মেজর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেডিকেল কোরের একজন সদস্য। তিনি আক্রান্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত ঢাকাস্থ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) কর্মরত ছিলেন।

নেত্র নিউজ এই বিষয়ে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) একজন মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান বাংলাদেশ সামরিক বাহিনীতে কেউ কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন বলে তার জানা নেই।

২৪ মার্চ বাংলাদেশ সরকার “কভিড-১৯ পরিস্থিতি মোকাবেলায়” জেলা প্রশাসনকে সহায়তার উদ্দেশ্যে সেনাবাহিনী মোতায়েন করে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, মূলত সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতেই সামরিক বাহিনীর প্রায় ৩,৪০০ সদস্যকে দেশজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়াও কভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের তালিকা প্রস্তুতের দায়িত্বও তাদের দেওয়া হয়েছে। ঢাকাসহ দেশের একাধিক শহরের বিভিন্ন সড়কে সৈন্যদের টহল দিতে দেখা গেছে। জনগণকে ঘরের ভেতর থাকার অনুরোধ জানানো ছাড়াও, মানুষ যেন কোথাও ভিড় না করেন সেটি তদারকি করতেও দেখা গেছে সৈন্যদের।

৭ এপ্রিল নাগাদ, বাংলাদেশে সরকারি হিসাব অনুযায়ী কভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে ১৭ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৪ জন। তবে সেনাবাহিনীর এই কর্মকর্তা আক্রান্তের সরকারি তালিকায় আছেন কিনা, তা স্পষ্ট নয়।●